>

মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ০৪:৪৩ অপরাহ্ন

মিথ্যা বলার পুরস্কার থাকলে প্রথমটি পেতেন মির্জা ফখরুল: তথ্যমন্ত্রী

মাতৃভূমির খবর ডেস্কঃ  বিএনপির মহাসচিব অসত্য কথা বলতে পারদর্শী বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, সুন্দর করে সাবলীলভাবে মিথ্যা বলার যদি কোনো পুরস্কার থাকত, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রথম পুরস্কারটি পেতেন। আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের আবদুস সালাম হলে সাংবাদিক শাবান মাহমুদ রচিত ‘বঙ্গবন্ধুর সারাজীবন’ গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, যদি সবকিছুতেই না বলার প্রবণতা বিএনপি-জামায়াত পরিহার করতো, বাংলাদেশ আরও অনেক দুর এগিয়ে যেতে পারতো। বিএনপি বলেছে-দেশের মানুষকে নাকি সরকার জিম্মি করে রেখেছে। যে দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় ছিল ছয়শ ডলার। সেই আয় এখন দুই হাজার ডলারে উন্নীত হয়েছে। দেশের মানুষকে বিএনপি-জামায়াত জিম্মি করেছে। দেশের মানুষকে তারাই জিম্মি করে, দিনের পর দিন অবরোধ ডেকে, মানুষের ওপর আবার পেট্রোল বোমাও মেরেছে তারা। রাজনীতির নামে এমন সহিংসতা এবং বীভৎসতা সম্প্রতি কোনও দেশে হয়নি।

হাছান মাহমুদ বলেন, একথা সত্য, পরপর তিন বার ক্ষমতায় থাকার কারণে আওয়ামী লীগে সুযোগসন্ধানী এবং অনুপ্রবেশকারীদের প্রবেশ ঘটেছে। যারা রাজনীতিকে ব্যবহার করে ফায়দা লুটতে চায়, ঢাল হিসেবে ব্যবহার করতে চায়, এসব সুযোগ সন্ধানীদের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। কে কোন দলের-মতের তা না দেখেই দুষ্কৃতিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন প্রধানমন্ত্রী। ভবিষ্যতেও এই অভিযান চলমান থাকবে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্নের বাংলাদেশ কল্পনা করেছিলেন, আমরা বাংলাদেশকে সেই জায়গায় নিয়ে যেতে চাই। দেশকে গঠন করতে হলে সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টা দরকার। আমাদের মধ্যে রাজনৈতিক মতভেদ থাকবে। ক্ষমতায় থাকলে সমালোচনাও হবে, ভুল-ত্রুটিও হতে পারে। পৃথিবীর কোনও সরকার শতভাগ নির্ভুলভাবে কাজ করতে পারেনি।

প্রকাশনা অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ এবং ‘বঙ্গবন্ধুর সারাজীবন’ বইয়ের লেখক ও সাংবাদিক নেতা শাবান মাহমুদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, অমর একুশে গ্রন্থমেলায় প্রকাশিত হয়েছে বিশিষ্ট সাংবাদিক শাবান মাহমুদের লেখা গ্রন্থ ‘বঙ্গবন্ধুর সারা জীবন’। একুশের বইমেলার লাবনী প্রকাশনীতে (৭৪০/৪১ স্টল) গ্রন্থটি পাওয়া যাচ্ছে।

গ্রন্থটিতে উঠে এসেছে, জয় বাংলা স্লোগান এর একটি ইতিহাস, শেখ মুজিবসহ সকল রাজবন্দীর মুক্তি, ইয়াহিয়ার ক্ষমতায় আগমন, ৭০ এর নির্বাচন, ২৫ মার্চ পাক বাহিনীর হত্যাকা- এবং শেখ মুজিব গ্রেপ্তারসহ বিভিন্ন বিষয়। রয়েছে ১৯৪৯ সালের ৮ জানুয়ারি ঢাকার আরমানিটোলা ময়দানে মুসলিম লীগ সরকারের বিরুদ্ধে জুলুম প্রতিরোধ দিবস, ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন ঢাকার রোজ গার্ডেনে মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীকে সভাপতি, শামসুল হককে সম্পাদক এবং শেখ মুজিবুর রহমানকে যুগ্ম সম্পাদক, আওয়ামী মুসলিম লীগ গঠন। আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করতে শেখ মুজিবের ধারাবাহিক সংগ্রাম, যুক্তফ্রন্ট, গণপরিষদ নির্বাচন, ৬ দফা আন্দোলন, আইয়ুব বিরোধী রাজপথের সংগ্রাম, শেখ মুজিবের জবানবন্দী, ইতিহাসের এক অমর সাক্ষী।

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালির ৫৫ বছরের জীবনের শৈশব থেকে ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট পর্যন্ত ঐতিহাসিক অধ্যায়গুলো তুলে আনা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীতে ব্যাপক গবেষণা আর দীর্ঘ সাধনার ফলে মূল্যবান বইটি বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানার আগ্রহ মেটাবে।

শাবান মাহমুদ বলেন, আমার প্রথম প্রকাশিত রাজনৈতিক বই ‘বঙ্গবন্ধুর সারা জীবন’ একুশে বইমেলার প্রথম দিনেই যে সাড়া পড়েছে, তাতে আমি পাঠক মহলের কাছে কৃতজ্ঞ। বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীতে ব্যাপক গবেষণা আর দীর্ঘ সাধনার ফলে মূল্যবান বইটি মহাদেশের সচেতন পাঠকদের কাছে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানার আগ্রহ মেটাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন





সর্বস্বত্ব © ২০১৯ মাতৃভূমির খবর কর্তৃক সংরক্ষিত
Design & Developed BY ThemesBazar